অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত, প্রিন্সিপাল শাখা লকডাউন

171

রাষ্ট্রায়ত্ব অগ্রণী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে প্রিন্সিপাল শাখার এক তরুণ কর্মকর্তা নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি শাখাটির রেমিট্যান্স বিভাগে কর্মরত ছিলেন। আক্রান্ত কর্মকর্তার বয়স ত্রিশের ঘরে। গত রোববার তিনি সর্বশেষ অফিসে যান। এজন্য ওই দিন শাখাটিতে কর্মরত ৬৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকটির গুরুত্বপূর্ণ শাখাটিকে লকডাউন করা হয়েছে।

news_226250_1

বিষয়টি নিশ্চিত করে অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. শামস্-উল-ইসলাম বলেন, গত রোববার ওই কর্মকর্তা সর্বশেষ অফিসে এসেছিলেন। সেদিন কাজ শেষে বাসায় ফেরার পর শারিরীকভাবে অসুস্থ বোধ করেন। এজন্য তাকে ছুটি দেয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে তার করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়। বুধবার বেলা ১১টায় পরীক্ষার ফলাফল এলে দেখা যায়, ওই তরুণ কর্মকর্তা করোনাভাইরাস দ্বারা সংক্রমিত হয়েছেন।

তিনি বলেন, আক্রান্ত কর্মকর্তার শারিরীক অবস্থা এখনো স্থিতিশীল। খুব বেশি জ্বর বা অন্য শারিরীক উপসর্গগুলো দেখা যায়নি। সতর্কতামূলক প্রদক্ষেপ হিসেবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন নিয়ে আমরা প্রিন্সিপাল শাখা লকডাউন করে দিয়েছি। একই সঙ্গে শাখাটিতে কর্মরত ৬৩ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

রাজধানীর মতিঝিলে অগ্রণী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ভবনের নিচ তলায় প্রিন্সিপাল শাখা। ওই শাখাটি অগ্রণী ব্যাংকের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

সংশ্লিষ্ট বিশ্বস্ত একাধিক সূত্র মতে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অগ্রণী ব্যাংকের ওই তরুণ কর্মকর্তা ২০১৭ সালে সিনিয়র অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর জেলায়। ঢাকার বনশ্রী এলাকায় পরিবারের সঙ্গে তিনি বসবাস করেন। তার পিতাও বেসরকারি খাতের মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

সম্প্রতি ইতালি থেকে আক্রান্ত ব্যাংক কর্মকর্তার চাচা দেশে আসেন। চাচার কাছ থেকে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গত রোববার অসুস্থতা নিয়েই ওই ব্যাংক কর্মকর্তা কর্মক্ষেত্রে যান। সেখান থেকে ফেরার পর তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি ঘটে। মঙ্গলবার রাতে তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়।

আজ বুধবার ১১টায় পরীক্ষার ফলাফলে ব্যাংক কর্মকর্তার করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.