আমার ওপর বিশ্বাস রাখুন: অর্থমন্ত্রী

212

পুঁজিবাজারসহ দেশের সার্বিক অর্থনীতি নিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আমার ওপর বিশ্বাস রাখুন। অসততা আমাকে স্পর্শ করেনি, করবেও না। আমি অনেক কষ্ট করে লেখাপড়া করেছি। সাধারণ মানুষের প্রতি আমার দায়বদ্ধতা রয়েছে।

bank

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর শেরে-বাংলা নগরের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে প্রাক-বাজেট আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিকদ এবং এনজিও নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বাজেট প্রণয়নের নীতিগত দিক সম্পর্কে মতবিনিময়ের উদ্দেশ্যে এ সভার আয়োজন করা হয়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমি অনুরোধ করবো, এই দেশটা আমাদের। দেশের ক্ষতি হয়, দেশের মানুষের চলার পথে যাতে প্রতিবন্ধকতা না হয় সে জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। সবাইকে সবার জায়গা থেকে কাজ করতে হবে।

তিনি বলেন, ব্যাংকিং ব্যবস্থা খুব ভালো আছে- এটা বলব না। তবে খুব খারাপও নেই। এ খাতের উন্নয়নে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি হচ্ছে। অনেকেই খেলাপি ঋণের বিপরীতে কোন উদ্যোগ নিতে পারছে না। মামলা করতে পারছে না। এসব বিষয়ে উদ্যোগ নেবে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি।

মুস্তফা কামাল বলেন, ব্যাংক ঋণে সুদের হার বেশি। এত বেশি সুদ দিয়ে কখনই ব্যবসা করা যাবে না। সুদের ওপর নতুন করে সুদ আরোপ করা হচ্ছে। আগামীতে সুদের হার অনেক কমিয়ে নিয়ে আসা হবে। যাতে ঋণ খেলাপি না হয়। এছাড়া বাজেটে পুঁজিবাজারের জন্য বাজেটে প্রণোদনা থাকবে।

তিনি বলেন, ব্যবসা করলে লাভ বা লোকসান হতে পারে। যারা লোকসান দেয় তাদের জন্য কিছু করার ব্যবস্থা থাকে না। ঋণ খেলাপি হওয়ার পর সব ব্যবসায়ীকে জেলে পাঠালে তো হবে না। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করতে হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, মানি লন্ডারিং প্রতিরোধের জন্য যেসব পণ্য বিদেশ থেকে আসবে সেগুলো শতভাগ স্ক্যানিং হয়ে আসবে। আবার যেসব পণ্য রপ্তানি হবে সেগুলোও শতভাগ স্ক্যানিং করা হবে। তাছাড়া র‌্যান্ডম শ্যাম্পলিংয়ের মাধ্যমে পরিদর্শন করার ব্যবস্থাও করা হবে।

তিনি বলেন, যারা আয়কর দেয় তারা শুধু কর দেবে আর যারা কর দেয় না তারা দেবে না-এটা কেমন কথা। দেশের ৪ কোটি মানুষ কর দেওয়ার যোগ্য হলেও কর দেয় মাত্র ২৯ লাখ মানুষ। এজন্য ভ্যালু অ্যাডেড ট্যাস্ক নির্ধারণ করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.