প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে পোস্ট : আইনজীবীকে তলব

64

রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে ফেসবুকে আদালত অবমাননাকর পোস্ট দেওয়ায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. আশরাফুল ইসলামকে তলব করেছেন আপিল বিভাগ। আগামী ৮ আগস্ট তাকে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বিটিআরসিকে ব্লক করে রাখতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ৬ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতের আদেশ পড়ে শোনান আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী। আদালত বলেছেন, ফেসবুকে এ ধরনের পোস্ট আদালতের প্রতি অনাস্থার শামিল। এটা আদালত অবমাননা। তিনি সুপ্রিম কোর্ট ও প্রধান বিচারপতিকে আঘাত করেছেন।

এর আগে প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবীর ফেসবুক পোস্ট আপিল বিভাগের নজরে আনেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতকে বলেন, মাই লর্ড একটি বিষয় আপনাদের নজরে আনতে চাই। একজন আইনজীবী প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন। এরপর ব্যারিস্টার মো. আশরাফুল ইসলাম আশরাফের ফেসবুক পোস্ট পড়ে শোনান অ্যাটর্নি জেনারেল। ‘বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ চাই’ শিরোনামে ওই ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, যেখানে মাননীয় বিচারপতিগণ তাদের স্ব স্ব থাকার জায়গায় বসে বিচারকার্য পরিচালনা করতে পারতেন এবং পারেন কিন্তু প্রধান বিচারপতি মহোদয় সে ব্যবস্থা না করে, আইনজীবী এবং তাদের পরিবার-পরিজনকে জীবন-ধারণের চরম সংকটে পতিত করেছেন। অতএব, এই মহান দায়িত্বে থাকার উনার কোনো অধিকার নেই।

এ সময় আপিল বিভাগে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.