সাভারে পোশাক কারখানা বন্ধে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার চিঠি

134

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে শিল্পাঞ্চল সাভার-আশুলিয়ার তৈরি পোশাক কারখানা বন্ধ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. সায়েমুল হুদা।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো একটি চিঠিতে তিনি এ অনুরোধ জানিয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি।

দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা গার্মেন্টস বন্ধ ও লকডাউনের বিষয়ে একটি চিঠি দিয়েছেন। তবে এ বিষয়গুলো সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. নাজমুল হুদা মিঠু বলেন, এ নিয়ে সাভার উপজেলায় মোট ৩৪ জন রোগী করোনায় শনাক্ত হয়েছে। তবে এর মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পাঠানো নমুনার মধ্যে ২৫ জন রয়েছেন। বাকিরা অন্যান্য জায়গা থেকে নমুনা পরীক্ষা করিয়েছেন।

করোনার সংক্রমণের গত রোববার সকাল থেকে মধ্যেই সাভার ও আশুলিয়ার অনেক কারখানা চালু করা হয়েছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. নাজমুল হুদা মিঠু শুক্রবার জানান, সাভারে একদিনে সাত পোশাক শ্রমিকের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল (বৃহস্পতিবার) ৫১ জনের নমুনা পাঠালে আটজনের পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরমধ্যে সাতজনই পোশাক শ্রমিক।

আশুলিয়ার গ্লোবাল নিট ওয়ার লিমিটেড কারখানার পরিচালক রেজাউল কবির রাসেল বলেন, সারা দেশে করোনার অবস্থা অবনতি হচ্ছে। তবে তাদেরকে কারখানা বন্ধ রাখার জন্য কোনো সিদ্ধান্ত এখন পর্যন্ত জানানো হয়নি।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, এ বিষয়ে তার কিছু জানা নেই।

সাভার মডেল থানার ওসি এ এফ সায়েদ বলেন, পোশাক কারখানা বন্ধ রাখতে চিঠির বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত বা আমাদেরকে অবহিত করা হয়নি। সিদ্ধান্ত নেয়া হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.